উপচে পড়া ভিড়ে ডেভেলপারস কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিবেদক, মৈত্রী অনলাইন
প্রকাশ: শনিবার, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ সময়- ৩:১০ পুর্বাহ্ন

programar

 

ঢাকা : বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সেলিব্রেটি হল। হলে তিল ধারণের জায়গা নেই। পুরো হল জুড়ে আনাগোনা আর অবিচ্ছিন্ন মনোযোগ বক্তাদের দিকে। কেউ কেউ আবার জায়গা না পেয়ে বসেছেন মঞ্চের সামনের কার্পেটে। আগ্রহীরা সবাই ভবিষ্যৎ ওয়েব ডেভেলপার। এমন তিল ঠাঁই না থাকা অবস্থা নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ডেভেলপারস কনফারেন্স ২০১৭।

বেসিস সফটএক্সপোর তৃতীয় দিনে বিকেল সাড়ে তিনটা থেকে শুরু হয় এই কনফারেন্স। একটানা চলে রাত ৮টা পর্যন্ত।

বেসিসের সহ-সভাপতি এম রাশিদুল হাসান বলেন, ২০১১ সাল থেকে এ পর্যন্ত আমরা ৬টি ডেভেলপারস কনফারেন্স আয়োজন করেছি। প্রতিবারই আমরা ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। আমরা জেনেছি, এমন আয়োজন থেকে অনেকেই অনুপ্রাণিত হয়েছেন, কাজ করেছেন এবং অনেক কিছু জেনেছেন। তিনি বলেন, এখানে অনেকেই রয়েছেন যারা গত ডেভেলপারস কনফারেন্স থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে কাজ শুরু করেছেন। যেটা আমাদের প্রযুক্তি খাতের জন্য খুবই ইতিবাচক বিষয়। আমার সামনে এই হাজার-হাজার আগ্রহীরাই আগামীতে দেশের প্রযুক্তি খাতের আয় এক বিলিয়ন প্রকারান্তরে পাঁচ বিলিয়ন ডলার আয়ে ভূমিকা রাখবেন।

দেশের অন্যতম সেরা প্রোগ্রামার, সফটওয়্যার আর্কিটেক এবং নতুন প্রজন্মের আইডল হিসেবে পরিচিত হাসিন হায়দার এই কনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, প্রতিবছর ডেভেলপারস কনফারেন্স উপলক্ষে সবার একটা আগ্রহ থাকে। প্রতিবারই দেখা গেছে এই কনফারেন্সের হল পরিপূর্ণ হয়ে যায়। এর থেকে বোঝা যায় তরুণদের মাঝে ডেভেলপার হওয়ার আগ্রহ কতোটা বেড়েছে। এখনকার দর্শক-শ্রোতাদের মাঝ থেকেই আগামী দিনের সেরা ডেভেলপার তৈরি হবে।

এই কনফারেন্স আয়োজনে প্রথম থেকেই আরও সহযোগিতা করে আসছেন ক্লাউড সফটওয়্যার সল্যুউশন লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিয়ামুল হাসান, ডিফ্রেন্ট টেকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নূরহাদ আবির প্রমুখ।

programar 1

পরে ‘লেটস বি প্রোডাক্টিভ উইথ স্প্রিং বুট’ নিয়ে আলোচনা করেন ভ্যান্টেজ ল্যাব ঢাকার জ্যেষ্ঠ সফটওয়্যার ডেভেলপার এ এন এম বজলুর রহমান। এছাড়াও আইভিভিল্যাবসের সিটিও মাহবুবুর রহমান ‘ইলেকট্রন : ইনার পিস বিউল্ডিং ক্রস প্লাটফর্ম ডেস্কটপ অ্যাপ্লিকেশন’, প্লেস্কের সিনিয়র সেলস ইঞ্জিনিয়ার ভ্লাদিমিরি সামুকভ প্লেস্ক নিয়ে, আন্ডারস্ট্যান্ডিং মাইক্রো সার্ভিস নিয়ে ভ্যান্টেজ ল্যাবস ঢাকার সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট লিড এম এ হোসাইন তনু, ব্যাকপ্যাক টেকনোলজিস ইন কর্পোরেশনের ডিরেক্টর অব ইঞ্জিনিয়ার মোজাম্মেল হক, ইমেইল নিয়ে লোকাল স্টাফিং এলএলসির সিনিয়র ফুল স্টাক ডেভেলপার আবু আশরাফ মাশনুন, জেনন এর টেকনোলজি অ্যার্কিটেক্ট অ্যান্ড গেইম মাস্টার লোবান আমান রহমান, প্যানাসিয়া সিস্টেম লিমিটেডের প্রোডাক্ট ম্যানেজার মাফিনার রশিদ খান, লাভারেজ ভার্সেস ডিজাঙ্গ নিয়ে আলোচনা করেন জিজি বসুন্ধরা গ্রুপের সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ সুমন মোল্লা এবং টেলিনর হেলথ এ/এস এর সিনিয়র সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার নুরুজ্জামান মিলন আলোচনা করেন।

কনফারেন্সে বক্তা ও উপস্থাপকরা সঠিক উপায়ে এবং পরিশ্রম-নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করলে খুব সহজেই প্রোগ্রামার ও ওয়েব ডেভেলপার হওয়া যাবে বলে বলেন। তবে এজন্য অবশ্যই জেনে বুঝে এই কাজে আসতে হবে বলেও জানান তারা।

মৈত্রী/ এএ 

Banner