বাইক চালিয়ে মাসে আয় ২৫ হাজার টাকা

আলাউদ্দিন আলিফ, নিজস্ব প্রতিবেদক, মৈত্রী অনলাইন
প্রকাশ: সোমবার, ৬ মার্চ ২০১৭ সময়- ১১:২৮ পুর্বাহ্ন

16997407_1328485760522834_384534053_n

ঢাকা : গ্রাম বাংলায় মটর সাইকেল একটি জনপ্রিয় বাহন। নিজের না থাকলেও গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য বাইক ভাড়ায় পাওয়া যায়। রাজধানী ঢাকাতেও নিজের একটি বাইক সঠিক সময়ে গন্তব্যে যাওয়ার জন্য তুলনাহীন। তবে এবার আপনার বাইক শুধু আপনার আরামদায়ক ভ্রমণের কারণ হবে না সাথে বাড়তি উপার্জনের সুযোগও করে দেবে। যাতায়াতের জন্য পাঠাও দিচ্ছে নিজের বাইকে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত মাসিক উপার্জনের সুযোগ।

নিজের একটি ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং কাগজপত্রসহ বাইক থাকলে আপনিও নিতে পারেন এই সুযোগ। কোন অফিসে যেতে হবে না অথবা ড্রাইভিংয়ের বাধ্যবাধকতাও নেই। ইচ্ছেমত অ্যাপস চালু করে উপার্জন করার সুযোগ দিচ্ছে পাঠাও নামের এই অ্যাপসটি। আপনার উপার্জিত টাকা আপনি নগদ পাবেন গ্রাহকের কাছে অথবা পাঠাও আপনাকে পৌঁছে দেবে রকেটের মাধ্যমে।

মাসুদ পারভেজ কাজ করেন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে। ৬টা পর্যন্ত অফিস করে নিজের বাইক নিয়ে পাঠাও  এর মাধ্যমে বাড়তি উপার্জন করেন।  পাঠাও এর খবর কিভাবে জানলেন? প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ফেসবুক পেজে আমি একটি অ্যাড দেখতে পাই। নিজের বাইক থাকলে বাড়তি উপার্জনের সুযোগ দিচ্ছে পাঠাও। আমি রেজিস্ট্রেশন করি। একদিন পাঠাও এর কার্যালয়ে গিয়ে আমার ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং বাইকের কাগজপত্র সাবমিট করে ফটোকপি জমা দেই।  ১ ঘণ্টার একটি সেশন শেষে আমি পাঠাওতে কাজ করার সুযোগ পাই।  তারপর থেকে আমার পাঠাও এর সঙ্গে পথ চলা।

কত উপার্জন করছেন সপ্তাহে এমন প্রশ্নের জবাবে মাসুদ বলেন, আমি ৬দিন হল পাঠাও তে কাজ করছি।  প্রতিদিন আমার ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা উপার্জন থাকে।  এতে আমার বাইকের খরচ বাদ দিয়ে ২০০ থেকে ৩০০ টাকা আমার বাড়তি উপার্জন থাকে।

arif rider

তিতুমীর কলেজের ব্যবসায় প্রশাসনের ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী আরিফুল ইসলাম।  পড়াশোনার পাশাপাশি মার্কেটিংয়ে কাজ করেন একটি ট্রেডিং প্রতিষ্ঠানে।  কাজের প্রয়োজনে প্রতিদিন ঢাকা শহরের অনেক স্থানে যেতে হয়।  ‘পাঠাও’ তে যোগ দেয়ার পর বাইকের ফুয়েল খরচের পাশাপাশি উপার্জন করছেন ভালো অংকের টাকা।  হাসিমুখে আরিফ জানান, এই বাড়তি উপার্জন আমাকে আমার পরিবারের খরচ মেটাতে সাহায্য করে।  আর প্রতিদিন আমার নতুন মানুষের সঙ্গে পরিচয় হয়। পাঠাও এর গ্রাহকরা ভদ্র এবং মার্জিত ব্যবহার করে।  এতে নিজেকে ড্রাইভার মনে হয় না।  কাজের তৃপ্তি মেলে।  নতুন পরিচয় মার্কেটিংয়েও আমার সহায়ক হয়।

যদি রাস্তায় কোন সমস্যা হয় অথবা গ্রাহক যদি অবৈধ কিছু বহন করে সমস্যা সৃষ্টি করেন সেক্ষেত্রে পাঠাও কিভাবে আপনাকে সহযোগিতা করবে? আরিফ বলেন, পাঠাও এর একটি সাপোর্ট টিম রয়েছে।  যেকোন সমস্যায় এই টিম রাইডারদের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত থাকে। এধরনের সমস্যা দেখা দিলে পাঠাও সর্বোচ্চ সহায়তা দেবে বলে আমার বিশ্বাস।

নিজের বাইক দিয়ে এধরনের সেবা দেয়াকে বাইক ফ্রি-ল্যান্সিং বলে আখ্যায়িত করছে ‘পাঠাও’।  এই প্রতিষ্ঠানের মার্কেটিং এক্সিকিউটিভ সারাহ হায়দার বলেন, আমরা ফ্রি-ল্যান্সার রাইডারদের প্রতি রাইডে ৮০ শতাংশ পর্যন্ত উপার্জনের ব্যবস্থা করে দিচ্ছি।  বেস ফেয়ার ২৫ টাকা করা হয়েছে। নতুন এই রাইডের মূল্য বাইকার্সদের হ্যান্ডসাম উপার্জনের সুযোগ দেবে।

rider 2

পাঠাও গ্রাহকদের জন্যও দিচ্ছে আকর্ষণীয় সুযোগ।  অ্যান্ড্রয়েড প্লে স্টোর থেকে `pathao’ লিখে সার্চ দিলেই আপনি পাবেন প্রায় ৯ মেগাবাইটের এই অ্যাপস। ডাউনলোড করুন। মোবাইল নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করুন। ফিরতি এসএমএস এ পাবেন একটি কোড। কোডটি রেজিস্ট্রেশন বক্সে বসিয়ে দিন। এবার বিনামূল্যে ভ্রমণের জন্য ‘গেট এ ফ্রি রাইড’ এ গিয়ে একটি কোড পাবেন। কোডটি কোন বন্ধুকে সাজেস্ট করুন। আপনার বন্ধু অ্যাপসটি নামিয়ে কোডটি ব্যবহার করলে আপনি পেয়ে যাবেন ১০০ টাকার ফ্রি রাইড। আপনার বন্ধুও পাবে একটি বিনামূল্যের রাইড।

‘পাঠাও’ অ্যাপসে উপার্জনের জন্য এখানে লগ ইন করুন। পাঠাও সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন।

মৈত্রী/ এএ

Tags:

Banner