বান্দরবানে ৫টি উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্ধোধন করলেন পার্বত্য মন্ত্রী

মোহাম্মদ আলী, বান্দরবান প্রতিনিধি
প্রকাশ: বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৯ সময়- ৬:২৩ অপরাহ্ন

বান্দরবান সুয়ালক টংকাবতি ইউনিয়নে উন্নয়ন কাজের এমপি নিউজ-ছবি

বান্দরবান : সরকার পার্বত্য এলাকার মানুষের জীবন মান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) সকালে মন্ত্রী এলজিইডির তত্ত্বাবধানে নির্মিত বান্দরবান সদর উপজেলার যৌথখামার-নীলাচল রাস্তার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও টংকাবতি ভায়া চিম্বুক আরএন্ড এইচ পর্যন্ত ও নীলাচল- মিলনছড়ি রাস্তার উন্নয়ন ও সুয়ালক ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় হতে সুলতানপুর পর্যন্ত রাস্তার উন্নয়ন ও কাজের ভিত্তিপ্রস্তর সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন একাডেমিক ভবন এর ভিত্তিপ্রস্তর সহ ৫ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্থর শেষে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা বলেন।

এ সময় তার সাথে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শফিউল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজোয়ানুল হক, বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নোমান হোসেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান একে এম জাহঙ্গীর, সদর উপজেলা সাবেক চেয়ারম্যান ও সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আব্দুল কুদ্দুছ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী জিল্লুর রহমান, পার্ত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মুহাম্মদ ইয়াসির আরাফাত, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষিপদ দাশ, জেলা পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর, পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি অমল কান্তি দাশ, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের সহকারী প্রকৌশলী মোহাম্মদ জামাল উদ্দীন, প্রকৌশলী মো. আমান, ভাইস চেয়ারম্যান রাজু মং মারমা, সুয়ালক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান উক্যনু র্মামা, প্রথম শ্রেনির ঠিকাদার শৌরভ দাশ শেকর, মহিলা মেম্বার রীনা বেগম, ছবুর মেম্বার, আব্বস মেম্বার, জামাল মেম্বার,মালেক মেম্বার, সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, উপজেলা আওয়ামীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুল চৌধুরী, আওয়ামীলীগী নেতা মো. নাসির, আওয়ামীলীগী নেতা আব্দুল করিম, শ্রমিকলীগ নেতা মো. হারুন, জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. পলাশ সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ বান্দরবানে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

পার্বত্য মন্ত্রী আরো বলেন, সরকার পার্বত্য এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থা ও শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। এ লক্ষে নতুন রাস্তা ,রাস্তা প্রস্থত করণ ও নতুন আবাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণসহ শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

মন্ত্রী সদর উপজেলার সুয়ালক ও টংকাবতি ইউনিয়নে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের প্রায় ১৫ কোটি ৮৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে যৌথখামার-নীলাচল রাস্তার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও টংকাবতি ভায়া চিম্বুক আরএন্ড এইচ পর্যন্ত ও নীলাচল- মিলনছড়ি রাস্তার উন্নয়ন ও সুয়ালক ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় হতে সুলতানপুর পর্যন্ত রাস্তার উন্নয়ন ও কাজের ভিত্তিপ্রস্তর সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন একাডেমিক ভবন এর ভিত্তিপ্রস্তর সহ ৫ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্থর করেন। পরে তিনি সুয়ালক সুলতাপুর এলাকায় জনসভায় বক্তব্য রাখেন।

মৈত্রী/এফকেএ/এএ

Banner