আলীকদম রেফারি বাজার তৈন মৌজায় বসতি উচ্ছেদ

এম.আলী হোসেন, চকরিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশ: মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর ২০১৯ সময়- ৮:৩৭ অপরাহ্ন

IMG_২০১৯১০৩০_১৪৪৫১০

বান্দরবান : জেলার আলীকদম উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের রেফারি বাজার এলাকায় আদালতের আদেশে উচ্ছেদ অভিযানে একাধিক বাড়ি উচ্ছেদ হয়েছে। পরদিন গোপনে ভাঙ্গা বাড়ীতে ঢুকে উল্টো বাদীকে হুমকি ও মারধরের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

জানা গেছে, বান্দরবান জেলার আলীকদম উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ২৮৭ নং তৈন মৌজায় রকিমা খাতুন গং এর নামীয় ১৯৩ নং আর হোল্ডিং এর ৩.৮৮ একর জমি জবরদখল করে রাখে সাব্বির আহাম্মদ গং জবর দখলের ঘটনায় রকিমা খাতুন গং বাদী হয়ে জেলা ও দায়রা জজ আদাল পার্বত্য জেলা বান্দরবানে একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলায় দীর্ঘ দিন চলার পর রকিমা খাতুন গং পক্ষে মাননীয় আদালতের রায় হয়। গত ২১ অক্টোবর আদালতের অফিস আদেশে গত ২৭ অক্টোবর সকাল ১০ টার দিকে পুলিশ নিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সাব্বির আহামদ গং এর ১২ টি বসতিস্থলে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে সরিয়ে দেয়। এদের মধ্যে সাব্বির আহাম্মদের পরিবার পরদিন গোপনে ভাঙ্গা বাড়ীতে ঢুকে বর্তমান পর্যন্ত অবস্থান রয়েছে।

গত ৩০ অক্টোবর সকালে রহিমা খাতুন গং উল্লেখিত জমিতে গাছ রোপন করতে গেলে সাব্বির আহমদের লোকজন উল্টো বাদী পরিবারকে হুমকি দিয়েছেন বলে জানান।
এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবার।

এই বিষয়ে চৈক্ষ্যং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান থেকে জানতে চাইলে তিনি জানান, ইতিপূর্বে মাননীয় আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী উচ্ছেদ অভিযানের বিষয়টি তিনি অবগত রয়েছেন।

বাদী রহিমা খাতুন আরো বলেন, সাব্বির আহমদ গং একটি ভাঙ্গা বাড়িতে ঢুকে পড়ে হুমকি দিচ্ছে এবং বাড়ি না ওঠার জন্য স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ইন্ধন দিচ্ছে বলে তিনি দাবি করেন।

মৈত্রী/এফকেএ/এএ

Banner