প্রবাসীর ব্যাংক হিসাব থেকে ১৩ লাখ টাকা উধাও!

স্টাফ রিপোর্টার / লিগ্যাল ভয়েস টোয়েন্টিফোর :

দুবাই প্রবাসী এক ব্যক্তির বাংলাদেশি একটি ব্যাংক হিসাব থেকে ১৩ লাখ টাকা গায়েব হওয়ার ঘটনায় এক নারীকে খুঁজছে পুলিশ। সাউথইস্ট ব্যাংকের বুথ থেকে টাকা তোলার সময় ধারণ করা ঐ নারীর ছবি প্রকাশ করে তাকে ধরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে পুলিশের পক্ষ থেকে। আর টাকার মালিক দুবাই প্রবাসী সাইফুল ইসলাম ঘোষণা দিয়েছেন, ঐ নারীর সন্ধানদাতাকে তিনি পুরস্কার হিসেবে দেবেন ১ লাখ টাকা।

গত বছরের ৬ নভেম্বর রমনা থানায় গিয়ে টাকা চুরির অভিযোগ করেন সাইফুল ইসলাম। সেখানে বলা হয়, সাউথইস্ট ব্যাংকে তার হিসাবে থাকা ১৩ লাখ টাকা গায়েব হয়ে গেছে। তার এটিএম কার্ডটিও পাওয়া যাচ্ছে না। সেই কার্ডেই তিনি পিন কোড লিখে রেখেছিলেন। তদন্তে নেমে গোয়েন্দা পুলিশ জানতে পারে, ২০১৯ সালের ৭ জুলাই থেকে ১৮ আগস্টের মধ্যে বিভিন্ন সময়ে রাজধানীতে ঐ ব্যাংকের ছয়টি বুথ থেকে ঐ অ্যাকাউন্টের টাকা তুলেছেন এক নারী। গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আশরাফউল্লাহ বলেন, ‘ব্যাংক স্টেটমেন্টে সাইফুলের অ্যাকাউন্ট থেকে যে সময় টাকা তোলা হয়েছে, ছয়টি বুথের সিসি ক্যামেরার ভিডিও যাচাই করে দেখা গেছে ঐ সময়গুলোতে একজন নারীই টাকাগুলো তুলছেন।’

গত বছর মাঝামাঝি সময়ে ঢাকায় আসার পর কিছুদিন থেকে আবার দুবাই চলে যান সাইফুল। নভেম্বর মাসে ফের ঢাকায় এসে সাউথইস্ট ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে গিয়ে দেখেন অ্যাকাউন্টে টাকা নেই। ঐ ব্যাংকের ডেবিট কার্ডও আর তিনি খুঁজে পাননি। পুলিশ কর্মকর্তা আশরাফউল্লাহ বলেন, ‘সাইফুলের বেশ কয়েকটি ব্যাংকের কার্ড রয়েছে। গত বছর মাঝামাঝি যখন ঢাকায় আসেন তখন তার সাউথইস্ট ব্যাংক থেকে টাকা তোলার প্রয়োজন না হওয়ায় কার্ডের ব্যাপারে খুব নজর ছিল না। নভেম্বরের প্রথম দিকে ঢাকায় এসে ঐ ব্যাংক থেকে টাকা তোলার প্রয়োজন হয়। কিন্তু মানিব্যাগ হাতড়ে দেখেন, অন্যান্য ব্যাংকের কার্ড থাকলেও সেখানে সাউথইস্ট ব্যাংকের কার্ডটি নেই। ব্যাংকে গিয়ে দেখেন অ্যাকাউন্টে থাকা ১৩ লাখ টাকাও গায়েব। পরে ব্যাংকের পরামর্শেই তিনি মামলা করেন। আশরাফউল্লাহ বলেন, ‘অনেকগুলো কার্ড থাকায় কার্ডেই পিন কোড লিখে রেখেছিলেন বলে সাইফুল আমাদের জানিয়েছেন। তার ধারণা, খুব কাছের কেউ কৌশলে মানিব্যাগ থেকে কার্ডটি চুরি করেছে এবং ঐ নারীকে দিয়ে টাকা তুলিয়ে নিয়েছে।’

ভিডিও ফুটেজে পাওয়া নারীর ছবি দেখানো হলে সাইফুল তাকে চেনেন না বলে গোয়েন্দা পুলিশকে জানিয়েছেন। আশরাফউল্লাহ বলেন, ‘ঐ নারীর সন্ধান যে দিতে পারবে, তাকে ১ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে বলে সাইফুল আমাদের জানিয়েছেন।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *