বান্দরবানে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত

মোহাম্মদ আলী, বান্দরবান জেলা প্রতিনিধি:

বান্দরবান : “ডায়াবেটিস পার্থক্য আনতে পারেন নার্সরাই” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বান্দরবানে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ১৪ নভেম্বর বেলা ১১টায় বান্দরবানের প্রধান প্রধান সড়কে পদক্ষিন শেষে বান্দরবান ডায়াবেটিস হাসপাতালের হল রুমে এক আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়।

বান্দরবান ডায়াবেটিস সমিতির সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান এর সভাপত্বিতে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান ডায়াবেটিস সমিতির যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক হাজ্বী মাহাবুবুল আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বান্দরবান ডায়াবেটিস সমিতির সদস্য রোটারিয়ান মোজাম্মেল হক লিটন, বান্দরবান ডায়াবেটিস হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাঃ ত্রিলোচন চাকমা,বান্দরবান ডায়াবেটিস সমিতির সদস্য মোঃ শফিকুল আলম(বাবুল), বান্দরবান ডায়াবেটিস সমিতির সদস্য আনোয়ার হোসেন, সদস্য আবু নাসের, সদস্য তরুণ কান্তি দাশ, সাংবাদিক মোহাম্মদ আলী, বান্দরবান ডায়াবেটিস হাসপাতালের অফিস সহকারী উয়ং ম্রা ক্রি মার্মা, প্রবীন স্টাপ মোঃ আবু মূছা (প্রকাশ বাম্পার)সহ সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তারা ছাড়াও স্থানীয় প্রবীণ ব্যক্তিরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

এসময় আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, ১৪ নভেম্বর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। বিশ্বের প্রায় সকল দেশে প্রতি বছর আর্ন্তজাতিক ডায়াবেটিস দিবস ফেডারেশন(আইডিএফ) এই দিবস উদ্যাপন করে। বর্তমানে জাতিসংঘ দিবস হওয়ায় এর সকল সদস্য রাষ্ট্রে জনসাধারণের মধ্যে ডায়াবেটিস বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য নানা কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়। জাতিসংঘ কর্তৃক গৃহীত উপরোক্ত প্রস্তাব অনুযায়ী ২০০৭ সাল থেকে জাতিসংঘের সদস্য দেশ গুলোতে ১৪ নভেম্বর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত হচ্ছে। বাংলাদেশে বর্তমানে ডায়াবেসি রোগীর সংখ্যা প্রায় ৯১ লক্ষ বলে ধারণা করা হয়।

বক্তারা আরো বলেন, প্রবীণরা সমাজের বোঝা নয়,প্রবীনদের মধ্যে যোগ্যতা রয়েছে, প্রবীনদের জ্ঞান,দক্ষতা ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে আগামীর সুন্দর বাংলাদেশ নির্মান সম্ভব। আসুন আমরা সকলে খাবার ও নিয়মিত শরীরর চর্চার প্রতি একটু সচেতন হয় তাহলে আমাদের জীবন আরো সুন্দর হবে।

মৈত্রী/এফকেএ/এএ