বাংলাদেশে প্রথম এটিএলএস কোর্স চালু

 

ঢাকা,লিগ্যাল ডেস্ক : দেশে প্রথমবারের মত বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস এন্ড সার্জনস (বিসিপিএস) আমেরিকান কলেজ অব সার্জনের সহায়তায় এডভান্সড ট্রমা লাইফ সাপোর্ট কোর্স (এটিএলএস) তৈরি করেছে। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কোর্স। কোর্সটি সড়ক দুর্ঘটনাসহ বিভিন্ন দুর্ঘটনার শিকার ও যুদ্ধাহত রোগীদের প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য এবং সংক্ষিপ্ত প্রশিক্ষণ প্রদান করে।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)’র অধ্যাপক বিসিপিএসের সচিব অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরী রাজধানীর মহাখালীতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘তীব্র ট্রমা নিরাময়ে এটিএলএস ভীষন গুরুত্বপূর্ণ একটি কোর্স- উন্নত সকল দেশে চিকিৎসকদের জন্য এ কোর্সটি বাধ্যতামূলক।’
এ সময় বিএসএমএমইউয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়–য়া বিসিপিএস’র প্রতিনিধিবৃন্দ ও বিদেশী প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
অধ্যাপক জলিল আরো বলেন, একজন আহত রোগীকে কিভাবে কিভাবে চিকিৎসা সেবা প্রদান করতে হবে, এ ব্যাপারে এ কোর্সটির লদ্ধ জ্ঞাণ, চিকিৎসা পদ্ধতি এবং কৌমল সম্পর্কে ব্যাপকভাবে প্রশিক্ষণ প্রদান করে। আমেরিকান কলেজ অব সার্জনের কোর্সটি আমেরিকান কলেজ অব সার্জনস, বিসিপিএস এবং বাংলাদেশ সার্জনস সোসাইটির মধ্যে একটি ত্রিপাক্ষিক চুক্তির মাধ্যমে তৈরি হচ্ছে।’
সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, এটিএলএস কোসটি ভারত, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, হংকং, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, চীন এবং ইন্দোনেশিয়াসহ বিশ্বের ৮৩টি দেশে বর্তমানে চালু রয়েছে। এখন বাংলাদেশ এটিএলএস’র ৮৪তম সদস্য হিসেবে বিবেচিত হবে।
যুক্তরাষ্ট্র, অষ্ট্রেলিয়া, ভারত, হংকং, মালয়েশিয়া থেকে ১২টি অনুষদ এবং বাংলাদেশ থেকে ৫টি অনুষদ ১৬ জন সিনিয়র চিকিৎসককে প্রশিক্ষণ দান করছে, যারা ভবিষ্যতে প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে।
বিদেশী প্রতিনিধিরা বাংলাদেশ ভবিষ্যতে সফলভাবে প্রশিক্ষণ পরিচালনা করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন। যা রোগীদের ট্রমা থেকে বের করে এনে নতুন জীবন দান করবে।
অধ্যাপক ডা কনক কান্তি বড়–য়া বলেন, বিএসএমএমইউতেও তাদের এ ধরনের কোর্স চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।