বিরোধীদলের সমালোচনাকে স্বাগত জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সংসদ প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের পক্ষ থেকে সরকারের সমালোচনাকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, এটি গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রের ধারায় সমালোচনা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং সংসদে যারা বিরোধী দলে আছেন আমি তাদেরকে আশ্বাস দিতে পারি আপনারা সরকারের সমালোচনা করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আমরা কোনো বাধা সৃষ্টি করবো না।’ প্রধানমন্ত্রী আজ একাদশ জাতীয় সংসদে নবনির্বাচিত স্পিকার ড. শিরীন শারমীন চৌধুরী ও ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়াকে অভিনন্দন জানানোকালে এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘অতীতে আমরা সরকারের সমালোচনার ক্ষেত্রে কোনো বাধা সৃষ্টি করিনি। ভবিষ্যতেও কোনো বাধা সৃষ্টি করবো না। সকল সংসদ সদস্যের অধিকার বিবেচনা করা তাঁর দায়িত্ব।’
প্রধানমন্ত্রী স্পিকারকে সরকারি দল এবং বিরোধী দলের সদস্যরা যেন সংসদে সমান সুযোগ পায় তা দেখার অনুরোধ করে বলেন, ‘আমি নিশ্চয়তা দিচ্ছি যে, আমরা সবধরনের সহযোগিতা দেবো।’


সংসদ নেতা বলেন, গণতন্ত্র একটা দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে যায়। আর বাংলাদেশে এটি প্রমাণিত সত্য। গত সাধারণ নির্বাচনে মা-বোনেরা ও নতুন ভোটাররাসহ দেশের জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশগ্রহণ করেছে। এই সংসদ একটি সফল নির্বাচনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আর এজন্য তিনি সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।


প্রধানমন্ত্রী জনগণের স্বার্থে সুরক্ষা এবং দেশের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার অঙ্গীকার করে বলেন, সংসদ সদস্যদের এটি মনে রেখে তাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে।
তিনি বলেন, ‘আমরা জনপ্রতিনিধি। কারণ আমরা তাদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। সুতরাং বাংলাদেশ যাতে জঙ্গিবাদ, মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং দেশের জনগণের শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত হয় আমাদের সেদিকে নজর দিতে হবে।’


শেখ হাসিনা বলেন, ‘গত ১০ বছরে ব্যাপক আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের কারণে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হয়েছে। তিনি বলেন, এই ধারা বজায় রেখে ইনশাআল্লাহ আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্তি সোনার বাংলা গড়ে তুলবো।’ তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার অনেক বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে গণতন্ত্রের ধারবাহিকতা রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আবারো সংসদে নির্বাচিত হয়েছি এবং আমাদের অবশ্যই জনগণের আশা-আকাক্সক্ষা বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশকে সামনে এগিয়ে নিতে হবে।’


সংসদ নেতা জাতীয় সংসদের স্পিকার পুনর্নির্বাচিত হওয়ায় ড. শিরীন শারমীন চৌধরীকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান। তিনি নতুন মেয়াদে স্পিকারের সাফল্য কামনা করে বলেন, ‘অতীতে আপনী দু’বার দক্ষতার সাথে সংসদ পরিচালনা করেছেন এবং আপনী তৃতীয়বারের মতো স্পিকার নির্বাচিত হয়েছেন।’ বক্তব্যের সূচনায় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু, জাতীয় চারনেতা, ৩০ লক্ষ শহীদ এবং দেশের স্বাধীনতার জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করা দুই লাখ মা-বোনের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।