প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষকদের বেতন ও মর্যাদা বৃদ্ধি করেছেন –খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

ঢাকা, লিগ্যাল ডেস্ক :
নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুুদ চৌধুরী বলেছেনে, শিক্ষকদের অধিকার ও সম্মান প্রতিষ্ঠার জন্য আওয়ামী লীগ সরকার সবসময় আন্তরিক রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিক্ষকদের বেতন ও মর্যাদা বৃদ্ধি করেছেন। শিক্ষকদের আস্থা ও ভরসার স্থল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আজ ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাব অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি কর্তৃক প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন এমপিকে দেয়া এক সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।
নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর শিক্ষকরা মর্যাদা পায়নি। ৭৫ পরবর্তি সরকারগুলো সকল ক্ষেত্রে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। সবচেয়ে বেশি ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে শিক্ষকদের মর্যাদার ক্ষেত্রে। ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধু ৩৭ হাজার এবং ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শিক্ষকদের চাকুরি জাতীয়করণ করেছিলেন।
খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাকির হোসেন কুড়িগ্রাম জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে অসাধারণ অবদান রেখেছেন। তিনি আশা করেন যে, জনাব জাকির হোসেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সারাদেশের শিক্ষার ভিত্তি আরো বেশি শক্তিশালি করবেন।
সংবর্ধিত প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিক্ষক সমাজসহ দেশ ও জাতি গঠনে কাজ করে যাব। তিনি বলেন, ৪০ বছর পর ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রাথমিক শিক্ষকদের চাকুরি জাতীয়করণ করেছেন। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর কোন সরকারই এ ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। শিক্ষকদের ন্যায়সঙ্গত দাবি পূরণে তিনি সচেষ্ট থাকবেন।
বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষা সমিতির সভাপতি মো: আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বঙ্গন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সিরাজুল হক আলো ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো: আবুল কাসেম ।