এক দশকের দুঃস্বপ্ন ভাঙতে কাল মাঠে নামছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশের জন্য দুঃস্বপ্নের নাম নিউজিল্যান্ড সফর। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে এখানে ২১ ম্যাচ খেলে সবগুলোতেই হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে টাইগারদের। এক দশক ধরে অবশ্য নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে একটা মনস্তাত্ত্বিক লড়াই চলছে বাংলাদেশের। ঘরের মাঠে সুযোগ পেলেই ছড়ি ঘোরাচ্ছে পরস্পরের ওপর। ঘরের মাঠে সর্বশেষ দুটো সিরিজেই সফরকারী কিউইদের হোয়াইটওয়াশ করে বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ড সফরে বিপরীত চিত্র। হারে হারে বিপর্যস্ত টাইগাররা। এমনি অবস্থায় বুধবার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামছে সফরকারী বাংলাদেশ। নেপিয়ারে দিবা-রাত্রির এ ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায়।

দুঃসংবাদের মধ্য দিয়েই এবারের সফর শুরু করছে বাংলাদেশ। সফর শুরুর আগ মুহূর্তে আঙুলের চোটের কারণে দল থেকে ছিটকে গেলেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাকিবকে ছাড়া নিউজিল্যান্ড আরো কঠিন বলেও দেশ ছাড়ার আগে বলেছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা। এছাড়া অনেক দিন ধরেই ওয়ানডে খেলা থেকে বাইরে টাইগাররা। বিপিএলে দীর্ঘ টি২০ টুর্নামেন্ট খেলেছে শীর্ষ ক্রিকেটাররা।

টি২০ ফরম্যাটে খেলতে খেলতেই ওয়ানডে সিরিজে খেলতে হচ্ছে মাশরাফিদের। বিপিএলের কারণে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা নিউজিল্যান্ডেও গেছেন ধাপে ধাপে। সর্বশেষ মাশরাফিসহ চারজন গেছেন গত শনিবার। সব কথার এক কথা, নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে মানিয়ে নেয়ার কোনো সময়ই পায়নি বাংলাদেশ। ওয়ানডে সিরিজ সামনে রেখে গত রোববার এ সফরে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচটি খেলে বাংলাদেশ। অপেক্ষাকৃত অচেনাদের নিয়ে গড়া নিউজিল্যান্ড একাদশের বিপক্ষে অংশ নিতে পারেননি নিয়মিত অধিনায়ক মাশরাফি, দলের অন্যতম ব্যাটিং স্তম্ভ তামিম ইকবাল ও অভিজ্ঞ পেসার রুবেল হোসেন।

প্রস্তুতি ম্যাচটিতে ব্যাট হাতে দৃঢ়তা দেখিয়েছেন মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ ও সাব্বির রহমান। ওই ম্যাচে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেন মেহেদি হাসান মিরাজ। এ হারকে খুব একটা হিসাবের মধ্যে নিচ্ছেন না তিনি। ম্যাচ শেষে বলেন, ‘দীর্ঘ এক মাস টি২০ ফরম্যাটের ক্রিকেট, এখানে এসেই ৫০ ওভারের ম্যাচ খেলতে হয়েছে। কাজটা কঠিন। তবে আমরা দ্রুত কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছি।’

নিউজিল্যান্ড মানেই পেসারদের পোয়াবারো। মুভমেন্ট আর সুইংয়ে ব্যাটসম্যানদের জীবন অতিষ্ঠ হওয়া। এ জায়গাটিতেও একটা বড় ধাক্কাই খেয়েছে বাংলাদেশ। এবারের বিপিএলে বাংলাদেশের পেসারদের মধ্যে সেরা নৈপুণ্য দেখান তাসকিন আহমেদ। বিপিএলের শেষ দিকে এসে ইনজুরির কবলে পড়েছেন তাসকিনও। মাশরাফি, রুবেল, মুস্তাফিজুর রহমানদের ওপর বোলিংয়ের ভার সামলানোর দায়িত্ব। তাসকিনের না থাকাটাকে বাংলাদেশের জন্য ক্ষতি বলে মনে করছেন সাবেক কিউই পেসার ও জনপ্রিয় ধারাভাষ্যকার ড্যানি মরিসন। বিপিএলের অভিজ্ঞতা দিয়ে এই কিউই গ্রেটের মনে হয়েছে, বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ে যথেষ্ট বৈচিত্র্য আছে। ওয়ানডে ফরম্যাটে টাইগারদের ভালো করার সম্ভাবনার কথাও বলেছেন মরিসন।

শুধু বাংলাদেশ নয়, নিউজিল্যান্ড সফর সুখকর হয় না উপমহাদেশের দলগুলোর জন্য। তবে এ বৃত্ত সম্প্রতি ভেঙে ফেলেছে ভারত। মাত্র কয়েক দিন আগেই ওয়ানডে সিরিজে স্বাগতিক কিউইদের ৪-১ ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। বাংলাদেশের জন্য এটা হতে পারে বাড়তি প্রেরণা।