রপ্তানিমুখী পণ্যের খাতভিত্তিক চাহিদাপত্র প্রণয়নে গুরুত্বারোপ বাণিজ্যমন্ত্রীর

legalvoice24.com

ঢাকা নিউজ ডেস্ক : বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি রপ্তানিমুখী পণ্যের খাতভিত্তিক চাহিদাপত্র প্রণয়ন এবং সে অনুযায়ী কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
তিনি বলেন, দেশের রপ্তানির পরিমাণ বাড়ানোর জন্য একটি ব্যবসা-বান্ধব পরিবেশ উন্নয়নের লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট নীতিমালার সহজীকরণের কোনো বিকল্প নেই।
ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (ডিসিসিআই) সভাপতি ওসামা তাসীরের নেতৃত্বে পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দ তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎকালে তিনি আজ এ কথা বলেন। বাণিজ্য সচিব মো. মফিজুল ইসলাম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
বানিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের রপ্তানির জন্য নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে হলে রপ্তানি পণ্যের বহুমুখীকরণ একান্ত প্রয়োজন এবং এ জন্য তৈরি পোশাকের পাশাপাশি সম্ভাবনাময় অন্যান্য পণ্যের জন্য প্রণোদনা ও বাজার সম্প্রসারণের ওপর গুরুত্বারোপ করা প্রয়োজন।’
ওসামা তাসীর বলেন, ২০২৪ সাল নাগাদ এলডিসি পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থান আরও সুদৃঢ় করার জন্য রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণ, নতুন বাজার সৃষ্টি ও রপ্তানি প্রবৃদ্ধিতে বাধা সৃষ্টি করে এমন বিষয়সমূহ নিয়ে বেসরকারিখাতের অংশগ্রহণে একটি সময়োপযোগী নীতিমালা প্রণয়ন করা হবে।
পাশাপাশি রপ্তানি প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে একটি কমপ্রিহেনসিভ ট্রেড পলিসি প্রণয়ন ও অটোমেটেড শুল্ক ব্যবস্থা নিশ্চিত করার প্রস্তাব করেন তিনি।
আলোচনাকালে ডিসিসিআই’র সভাপতি ব্যবসা পরিচালনার সূচকে বাংলাদেশের অবস্থানের উন্নয়নের জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে কোর-কমিটি গঠনের প্রস্তাব করেন, যেখানে বেসরকারি খাতের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতকরণসহ ঢাকা চেম্বারের প্রতিনিধি রাখার আহবান জানান।
অনুষ্ঠানে ডিসিসিআই ঊর্ধ্বতন সহ-সভাপতি ওয়াকার আহমেদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি ইমরান আহমেদ, পরিচালক আবুল কাসেম খান, আশরাফ আহমেদ, এনামুল হক পাটোয়ারী, হোসেন এ সিকদার, কে এম এন মঞ্জুরুল হকপ্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।