চীনে অবসরপ্রাপ্ত সামরিক কর্মকর্তাদের বিক্ষোভের আয়োজন : ১৯ জনকে গ্রেফতারের নির্দেশ

বেইজিং, ২৬ জানুয়ারি ২০১৯ লিগ্যালভয়েস ডেস্ক : চীনে সাবেক সেনা কর্মকর্তাদের বিক্ষোভের আয়োজনের অভিযোগে দেশটির কর্তৃপক্ষ শুক্রবার ১৯ জনকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছে।
রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া একথা জানিয়েছে।
সিনহুয়া প্রসিকিউটরদের বরাত দিয়ে জানায়, গত বছরের জুন মাসে ঝেনজিয়াং অথবা অক্টোবরে পূর্বাঞ্চলীয় পিংডু নগরীতে ‘সামাজিক শৃঙ্খলা ভঙ্গ করতে লোক জড়ো করা’ এবং ‘ইচ্ছাকৃতভাবে হামলার’ অভিযোগে ১৯ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।
ওই সময় প্রত্যক্ষদর্শীরা এএফপিকে জানিয়েছিল, বয়স্ক সাবেক সৈন্যরা অধিকতর পেনশন দাবি করায় তাদের মারধরের প্রতিবাদে ঝেনজিয়াংয়ে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
সমাবেশে চীনের সাবেক সৈন্যদের দীর্ঘকালীন বঞ্চনার কথা তুলে ধরা হয়। বিষয়টি দেশটির কমিউনিস্ট নেতৃবৃন্দের জন্য মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠে।
চীনা কর্তৃপক্ষ জনগণের প্রতিবাদ সহ্য করে না বললেই চলে। তবে পিপলস লিবারেশন আর্মির অবসরপ্রাপ্ত সৈন্যদেরকে বীর হিসেবে শ্রদ্ধা করা হয়।
তাই কয়েকদিন ধরে ঝেনজিয়াংয়ে তাদের বিক্ষোভে বাধা দেয়া হয়নি। পরে পুলিশের বাধায় বিক্ষোভ পন্ড হয়ে যায়।
ঝেনজিয়াং বিক্ষোভে ১ হাজারের বেশি লোককে নগর সরকারের সামনে জড়ো করা এবং পুলিশ ও নিরাপত্তা কর্মীদের সাথে সহিংস সংঘর্ষে জড়িয়ে পরার জন্য ৯ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।
পিংডুতে ১০ জনের বিরুদ্ধে সাবেক সেনাকর্মকর্তাদের বিক্ষোভের আয়োজন, পুলিশের ওপর হামলা, গাড়ি ভাঙ্গচুর ও সরকারি কর্মকান্ডে বাধা দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।
সাম্প্রতিক বছরগুলোতে হাজার হাজার অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা অবসরকালীন ভাতা ও অন্যান্য সুবিধার অপ্রতুলতার অভিযোগ এনে বিক্ষোভ করে।