মিয়ানমারে দুই সাংবাদিকের কারাদন্ডাদেশের বিরুদ্ধে আপিল

ইয়াংগুন

রোহিঙ্গা সংকট সম্পর্কিত প্রতিবেদন দেয়ায় মিয়ানমারে রয়টার্সের দুই সাংবাদিকের যে সাত বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়েছিল, শুক্রবার আইনী পদ্ধতিতে সাজা মওকুফের জন্য সুপ্রিম কোর্টে আপিল করা হয়েছে। খবর এএফপির।
রিপোর্টার ওয়া লোন (৩২) ও কিয়া সু (২৮) উভয়েই মিয়ানমারের নাগরিক, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে তাদের ইয়াংগুন থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে ‘সরকারি গোপনীয়তা আইন’ লঙ্ঘনের দায়ে তাদের কারাদন্ড প্রদান করা হয়।
তাদের দু’জনের বিরুদ্ধে রাখাইন রাজ্যে অভিযানের গোপন তথ্য প্রদানের অভিযোগ আনা হয়েছে। রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযান চালালে বহুসংখ্যক রোহিঙ্গা মুসলমান পালিয়ে যাওয়ার ইস্যুটি জাতিসংঘ ‘জাতিগত নিধন’ বলে অভিহিত করেছে।
তাদের দ-াদেশ গোটা বিশ্ব মিয়ানমারে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং তাদের তাৎক্ষণিক মুক্তির দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠে।
জানুয়ারি মাসে ইয়াংগুন হাইকোর্ট তাদের প্রাথমিক আপিল নাকচ করে দিলে তাদের ভাগ্য এখন নির্ভর করছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারকগণের হাতে।
রাজধানী নেপিদোতে আইনজীবী খিন মঙ যো এএফপি-কে জানান, ‘আমরা আজ সকালে আপিল করতে যাচ্ছি।’ ‘আমরা আশা করছি যে, সুপ্রিম কোর্ট এই আপিল নাকচ করবে না।’