সুন্দরবনে জবাই করা হরিণসহ ফাঁদ ও নৌকা জব্দ

সুন্দরবন থেকে একটি জবাই করা হরিণ, নৌকা ও হরিণ ধরার ফাঁদ জব্দ করেছে বন বিভাগ। বুধবার গভীর রাতে চাঁদপাই রেঞ্জের চরপুটিয়া টহল ফাড়ির কাগার ভাড়ানীর খালে নৌকা তল্লাশী করে একটি জবাই করা হরিণ ও ২শ ফুট হরিণ ধরার ফাঁদ জব্দ করে বন বিভাগের সদস্যরা।

 এ ঘটনায় চরপুটিয়া টহল ফাড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে ৩ ভাইয়ের নামে বন আইনে মামলা করেছেন।

আসামীরা হলেন, মোংলা উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নের চাদপাই গ্রামের হাকিম হাওলাদারের ছেলে এখলাস হাওলাদার (৩৫), ইয়াছিন হাওলাদার (৩২) এবং ইলিয়াস হাওলাদার (৩০)।

 সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের চাদঁপাই রেঞ্জের চরপুটিয়া টহল ফাড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইসমাইল হোসেন বলেন, বনরক্ষীরা টহলকালে একটি ডিঙ্গি নৌকাকে চ্যালেঞ্জ করে। এ সময় নৌকায় থাকা তিন ভাই দৌড়ে বনের মধ্যে পালিয়ে যায়। পরে নৌকা তল্লাশী করে একটি জবাই করা হরিণ ও ২শ ফুট হরিণ ধরার ফাঁদ পাওয়া যায়। বনরক্ষীরা নৌকাসহ হরিণ ও ফাঁদ জব্দ করে।

 তিনি আরো বলেন, পালাতকদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। তারা এ মাসের ১৫ তারিখে পাস পার্মিট নিয়ে বনে গিয়েছিল। ২৫ কেজি ওজনের জবাই করা হরিণটি মায়া প্রজাতির বলে জানিয়েছেন এ কর্মকর্তা।