২ কোটি ডলার নিয়ে পুনর্নির্বাচনের প্রচারণা শুরু ট্রাম্পের

আগামী বছর শেষে যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এ নিবার্চন সামনে রেখে ১ কোটি ৯২ লাখ ডলার নগদ অর্থ নিয়ে নতুন বছরের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যথেষ্ট তহবিল থাকায় আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু হওয়ার আগেই ডেমোক্র্যাটদের বিরুদ্ধে মাঠে নামতে পারছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার দল রিপাবলিকান পার্টি। এদিকে, ২০২০ সালের নির্বাচনে রিপাবলিকানদের বিরুদ্ধে লড়তে প্রস্তুতি গ্রহণ করছেন ডেমোক্র্যাটরা। খবর রয়টার্স।

২০১৮ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে নির্বাচনী প্রচারণার জন্য ২ কোটি ১০ লাখ ডলার সংগ্রহ করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। অন্য প্রেসিডেন্টদের মতো পুনরায় নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দেয়ার জন্য তিনি দুই বছর অপেক্ষা করেননি। ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ক্ষমতা গ্রহণের দিনই ট্রাম্প পুনরায় নির্বাচনে অংশগ্রহণের আবেদন দাখিল করেন। যার ফলে ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই নির্বাচনী প্রচারণার অর্থ সংগ্রহ ও ব্যয়ের সুযোগ পান তিনি।

গত বছরের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত কংগ্রেস নির্বাচনে বিশাল অংকের অর্থ ব্যয় করেন ট্রাম্প। যার মধ্যে ৩০ লাখ ডলার তিনি রিপাবলিকান ন্যাশনাল কমিটির কাছে পাঠান। এছাড়া একটি টেলিভিশন বিজ্ঞাপন নির্মাণেও অর্থ ব্যয় করেন তিনি। অভিবাসীদের উপস্থাপন নিয়ে সমালোচনা কুড়িয়েছে বিজ্ঞাপনটি।

আগামী নির্বাচনের জন্য তহবিল সংগ্রহের দিক থেকে ডেমোক্র্যাটদের চেয়ে যথেষ্ট এগিয়ে আছেন ট্রাম্প। ডেমোক্র্যাটরা সবেমাত্র প্রচারণার জন্য নিজেদের প্রস্তুত করছেন। ডেমোক্র্যাট দলের কোনো প্রার্থী এখন পর্যন্ত অর্থ সংগ্রহ বিষয়ে কিছু প্রকাশ করেননি। যদিও মার্কিন সিনেটর কমলা হ্যারিসের প্রচারণা দল জানায়, নির্বাচনে প্রার্থীতা ঘোষণার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তিনি ১৫ লাখ ডলার সংগ্রহ করেছেন।

ডেমোক্র্যাট দলের দুই ডজনের বেশি সদস্য মনোনয়ন পাওয়ার আশায় নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ডেমোক্র্যাট দলের তহবিল সংগ্রহকারী এবং ডেমোক্র্যাট সমর্থিত সুপার প্যাকের তত্ত্বাবধানকারী ডেভিড ব্রোক জানান, ট্রাম্পের তহবিল সংগ্রহ ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে স্নায়ুচাপ তৈরি করবে। তিনি জানান, একটি সমস্যা হলো, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যুদ্ধের জন্য অর্থ সংগ্রহের আগে ডেমোক্র্যাটদের নিজেদের অভ্যন্তরীণ যুদ্ধের জন্য অর্থ সংগ্রহ করতে হবে। নির্বাচনে কারা প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছেন সেই সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছেন ডেমোক্র্যাট দলের কিছু শীর্ষ দাতা।

ডেমোক্র্যাট দলের আরেক তহবিল সংগ্রহকারী গ্রেগ বার্লিন জানান, আমি নিশ্চিত, ডেমোক্র্যাটরা শেষ পর্যন্ত নগদ অর্থের দিক থেকে ট্রাম্পের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করতে পারবেন।

২০১৮ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে ২ কোটি ৩০ লাখ ডলার ব্যয় করেছেন ট্রাম্প। যার ফলে যে পরিমাণ অর্থ নিয়ে তিনি শুরু করেছিলেন, তার চেয়ে কম নগদ অর্থ নিয়ে চতুর্থ প্রান্তিক শেষ করতে হয়েছে