প্রতিবেশী সব দেশের সাথে রেল যোগাযোগ বাড়ানো হবে : রেলমন্ত্রী

লিগ্যালডেস্ক : রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, ভারতসহ আশে পাশের সকল প্রতিবেশী দেশগুলোর সাথে রেল যোগাযোগ বাড়ানোর বিষয়ে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে।


বুধবার ঠাকুরগাঁও রেল স্টেশন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।
নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, প্রতিবেশী দেশের সঙ্গেও রেল যোগাযোগ বৃদ্ধি করা হবে। প্রতিবেশী দেশগুলোর কেন্দ্রীয় সরকারের মাধ্যমে আলোচনা করে এ কাজ করা হবে। এতে ভারতসহ আশে পাশের দেশগুলোর সাথে আন্ত: যোগাযোগ ও ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারিত হবে অনেক বেশি।


তিনি বলেন, রেলপথ দীর্ঘদিন অবহেলিত ছিল। ২০১১ সালে রেলকে যোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে আলাদা করে পৃথক মন্ত্রণালয় গঠন করা হয়। সেই থেকে রেলকে নিরাপদ এবং সাশ্রয়ী যাতায়াত ব্যবস্থা করতে ইতোমধ্যে বহুমুখী প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। যেন রেল যোগাযোগে আরো বেশি আগ্রহী ও আকৃষ্ট হন মানুষ।
রেলমন্ত্রী বলেন, ১৯৬৫ সালের আগে ভারতসহ অন্যান্য দেশের সঙ্গে যে যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল সেটি আবার চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু কোন কাজ অসমাপ্ত থাকবে না। আমাদের সরকার বঙ্গবন্ধু নেওয়া সকল ইতিবাচক ও ভাল পদক্ষেপ আবারো গ্রহণ করবে পরিকল্পনা মাফিক। যাতে আমরা জাতির জনকের সোনার বাংলা গঠনে ভূমিকা রাখতে পারি। এদেশের মানুষকে উন্নত জীবন দিতে পারি।
নুুরুল ইসলাম সুজন বলেন, নির্বাচনের আগে পঞ্চগড় থেকে ঢাকা পর্যন্ত আন্তঃনগর ও দ্রুতযান দু’টি ট্রেন যুক্ত হয়েছে। এই ট্রেনটি বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর হয়ে ভারতের শিলিগুড়ি পর্যন্ত সংযুক্ত হবে। ফলে নেপাল, ভুটান, বার্মা থেকে মোংলা পোর্ট পর্যন্ত মালামাল আনা নেওয়ায় অবদান রাখবে।


তিনি বলেন, আগামী এক মাসের মধ্যে ঠাকুরগাঁওয়ে অনলাইনে রেলের টিকিট কেনার ব্যবস্থা করা হবে। সেই সাথে দ্রুত ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় এলাকার মানুষের জন্য টিকিটের সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে বলেও আশ্বাস দেন রেলপথ মন্ত্রী।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক কুরাইশি, প্রচার সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান রিপন সহ দলীয় নেতাকমীরা উপস্থিত ছিলেন। পরে জেলা আইনজীবী সমিতি আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় যোগ দেন রেলমন্ত্রী।