আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো বিশ্বের ২য় বৃহত্তম ঐতিহ্যবাহী চরমোনাই বাৎসরিক মাহফিল

সাইয়্যেদ মো. রবিন

চরমোনাই(বরিশাল), লিগ্যাল ডেস্ক : আখেরি মোনাজাতের মধ্যে দিয়ে ঐতিহ্যবাহী চরমোনাই দরবার শরিফের তিনদিন ব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল শেষ হয়েছে। গতকাল সকালে বাদ ফজর বিদায়ী বয়ানের পরে পীর সাহেব হযরত মাওলানা মুফতি সৈয়দ মো. রেজাউল করিম আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন। কয়েক লাখ মুসল্লি ও মুরিদানদের নিয়ে প্রায় ২৫মিনিটের এ মোনাজাতে দেশ-জাতি এবং মুসলিম উম্মাহসহ সারা বিশ্বের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মহান আল্লাহ রাব্বুল আল আমীনের দরবারে রহমত কামনা করা হয়। এসময় অশ্রুসিক্ত লাখ কোটি মুসল্লি পরম করুনাময় আল্লাহর দরবারে পানাহ চেয়ে আহাজারি করেন।

আখেরি মোনাজাতে পীর সাহেব মুরিদানদের বিদায় জানান। এরপরেই সড়ক ও নৌপথে শত শত যানবাহনে মুসল্লিদের ঘরে ফেরা শুরু হয়। চরমোনাই মাহফিলের মুসল্লিদের বহনকারী যানবাহনের নিরাপদ চলাচলে বরিশাল মহানগর পুলিশ বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন এলাকামুখি মুসল্লিবাহী বাসগুলো বরিশাল-ফরিদপুর-ঢাকা,বরিশাল-খুলনা, বরিশাল-ভোলা ও বরিশাল-পটুয়াখালী-বরগুনা মহাসড়ক ধরে যাচ্ছিল। বিপুল সংখ্যক নৌযানেও চরমোনাই থেকে মুসল্লিরা ঘরে ফিরছিলেন।


এর আগে গত বুধবার বাদ জোহর পীর সাহেবের উদ্বোধনী বয়ানের মধ্যে দিয়ে চরমোনাই দরবারের এবারের ফাল্গুনের বার্ষিক মাহফিলের সূচনা হয়। মাহফিলকে কেন্দ্র করে বরিশাল মহানগরী থেকে প্রায় ১৫কিলোমিটার দূরে কির্তনখোলা নদী তীরের চরমোনাই দরবার শরিফ একটি নগরীর রূপ নেয়। গত সোমবার থেকেই লাখ কোটি মুসল্লি সড়ক ও নৌপথে চরমোনাই পৌঁছতে শুরু করেন।