ওয়ানপ্লাসকে ভয় পাচ্ছে অ্যাপল-স্যামসাং!

বৈশ্বিক প্রিমিয়াম স্মার্টফোন বাজারে আধিপত্য বাড়ছে ওয়ানপ্লাসের। চীনা এ ডিভাইস ব্র্যান্ড ভারতে ক্রমবর্ধমান প্রিমিয়াম স্মার্টফোন বাজারে অ্যাপল ও স্যামসাংকে হটিয়ে শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে। বাজেট সাশ্রয়ী ডিভাইস বাজারে তীব্র প্রতিযোগিতা এবং প্রিমিয়াম স্মার্টফোন বাজারে ওয়ানপ্লাসের আধিপত্য বৈশ্বিক ডিভাইস জায়ান্ট অ্যাপল ও স্যামসাংয়ের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বৈশ্বিক হ্যান্ডসেট বাজারে সাশ্রয়ী মূল্যে প্রিমিয়াম ডিভাইস সরবরাহ করছে ওয়ানপ্লাস। অ্যাপল-স্যামসাংয়ের প্রিমিয়াম ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসের ভিত্তিমূল্য ১ হাজার ডলার থেকে শুরু। অন্যদিকে হাই-এন্ড ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস সরবরাহ করলে দামের ক্ষেত্রে নন-ফ্ল্যাগশিপ ব্যবসা নীতি অনুসরণ করছে ওয়ানপ্লাস। যে কারণে ভারতের মতো বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ স্মার্টফোন বাজারে প্রিমিয়াম ডিভাইস সরবরাহে অ্যাপল-স্যামসাংকে হটাতে সক্ষম হয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বৈশ্বিক হ্যান্ডসেট বাজারে অ্যাপল-স্যামসাং উভয় ব্র্যান্ডের দৃঢ় রিটেইল উপস্থিতি আছে। চীনা ব্র্যান্ড হিসেবে ওয়ানপ্লাস দীর্ঘদিন অনলাইনে ডিভাইস বিক্রির কার্যক্রম জোরদার করেছে। এখন বিভিন্ন দেশে ফিজিক্যাল রিটেইল উপস্থিতি বাড়াতে জোর দিচ্ছে ওয়ানপ্লাস। বিভিন্ন খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্ব বাড়াচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ধারণা করা হচ্ছে, ভবিষ্যতে প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট বাজারে ওয়ানপ্লাসের আধিপত্য আরো এক ধাপ বাড়বে।

প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট বাজারে অ্যাপলের মতোই ওয়ানপ্লাসের নির্দিষ্ট একটি গ্রাহক শ্রেণী রয়েছে। অ্যাপল আইফোনের নতুন সংস্করণ উন্মোচনের পর ফিজিক্যাল স্টোরের সামনে ক্রেতাদের লাইন পড়ে যায়। সম্প্রতি ভারতে ওয়ানপ্লাস তাদের সর্বশেষ ফ্ল্যাগশিপ ‘ওয়ানপ্লাস ৬টি’ উন্মোচন করেছে। ডিভাইসটি উন্মোচনের পর ওয়ানপ্লাসের বিক্রয়কেন্দ্রের সামনে ক্রেতাদের লক্ষণীয় ভিড় দেখা যায়।

১ হাজার ডলার কিংবা তার চেয়ে বেশি মূল্যের হ্যান্ডসেটে অ্যাপল-স্যামসাং যেসব প্রিমিয়াম ফিচার দিচ্ছে, ওয়ানপ্লাস সেসব প্রিমিয়াম ফিচার দিচ্ছে ৫০০-৬০০ ডলার মূল্যের ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেটে। এটি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ স্মার্টফোন বাজার ভারতে প্রিমিয়াম স্মার্টফোন বাজারে অ্যাপল-স্যামসাংকে পেছনে ফেলার প্রধান কারণ। আইফোনের সর্বশেষ সংস্করণ এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি এস সিরিজের ডিভাইসগুলোর প্রায় সবগুলো টপ-এন্ড ফিচার ওয়ানপ্লাস ৬টিতে মিলছে।

ডিভাইস উন্মোচনের ক্ষেত্রেও অ্যাপল-স্যামসায়ের পুরো বিপরীত নীতি অনুসরণ করছে ওয়ানপ্লাস। ছয় মাস অন্তর নতুন ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেট উন্মোচন করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি এবং নতুন একটি হ্যান্ডসেট উন্মোচনের পর পরই পুরনো সংস্করণের সরবরাহ বন্ধ করে দেয়া হয়, যা ওয়ানপ্লাসের নতুন সংস্করণের বিক্রি প্রবৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখছে।